[REQ_ERR: 403] [KTrafficClient] Something is wrong. Enable debug mode to see the reason. নোয়াখালীতে কাদের মির্জার বিরুদ্ধে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ সমাবেশ - BD Crime News 24

নোয়াখালীতে কাদের মির্জার বিরুদ্ধে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ সমাবেশ

নোয়াখালী প্রতিনিধি, লূংফুল হায়দার চৌধুরী, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ (বিডি ক্রাইম নিউজ ২৪) : নোয়াখালীতে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে হেফাজতে ইসলাম। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জেলা শহর মাইজদীর বড় মসজিদ মোড়ে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

কাদের মির্জা কর্তৃক ইসলাম বিদ্বেষী ও অশালীন বক্তব্য প্রত্যাহার, আলেমদের সম্পর্কে মিথ্যা বক্তব্য ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং মাদরাসা বন্ধের প্রতিবাদে এই বিক্ষোভ সমাবেশ করে হেফাজতে ইসলাম।

জেলা আমীর আল্লাম শিব্বির আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী। বক্তব্য রাখেন- নায়েবে আমীর মাওলানা নিজাম উদ্দিন, মাওলানা ছিদ্দিক আহমদ নোমান, মাওলানা নুরুল ইসলাম, মাওলানা কবির আহমদ, মাওলানা রুহুল আমিন চৌধুরী প্রমূখ।

বক্তাগণ বলেন, মির্জা কাদেরকে অবিলম্বে ওলামা ও ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্য প্রত্যহার, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, বন্ধ মাদরাসাটি খুলে দেওয়া জরুরী। মির্জা কাদের কর্তৃক অশালীন ও ধর্ম বিদ্বেষী বক্তব্য প্রত্যাহার করত তাকে জনতার কাতারে আসতে হবে এবং দায়িত্বশীলের মত বক্তব্য দিতে হবে। সকল আলেমের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় হেফাজতের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ বিক্ষোভ অব্যাহত থাকবে এবং আগামীতে আরো কঠোর কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে। বিক্ষোভ মিছিল শেষে উক্ত দাবিতে নোয়াখালী জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য গত ১০ ফেব্রুয়ারী কোম্পানীগঞ্জে বড় রাজাপুর গ্রামের সিদ্দিকীয়া নূরানী মাদ্রাসার উদ্যোগে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে বক্তা মুফতি ইউনুছ ও ইমরান হোসেন রাজুকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। পরে তারা জামিনে মুক্ত্ হন। এ ঘটনায় মাহফিলের মঞ্চে মুফতী ইউনুছ আহমদকে লাঞ্জিত, ইসলাম বিদ্বেষী ও অশালীন বক্তব্য প্রদান, মিথ্যা মামলা দিয়ে অযথা হয়রানীর অভিযোগ করেন হেফাজত নেতারা।

Les Etats-Unis détiennent la palme des médicaments les plus chers, suivis de près par le Japon. La Thaïlande est à l’inverse l’un des pays les moins coûteux en termes d’accès aux traitements. casino canada Cette étude comparative a sélectionné des médicaments massivement prescrits à travers le monde pour soigner une variété d’affections courantes telles que les maladies cardiaques, l’asthme, le diabète, les troubles anxieux ou la dysfonction érectile.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *