কঙ্গনার নতুন রেকর্ড

বিনোদন (বলিউড), ২৬ মার্চ ২০১৯ (বিডি ক্রাইম নিউজ ২৪) : বলিউডে পারিশ্রমিকে বৈষম্য নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলে এসেছেন। কিন্তু ছবিটা কি বদলাচ্ছে আদৌ? এখনও বলিউডে শাহরুখ-আমির খানরা ৫০-৬০ কোটি টাকা করে নেন প্রতি ছবিতে (লভ্যাংশ বাদে)। রণবীর কপূর-রণবীর সিংহরা ২০-২৫ কোটির আশপাশে। কিন্তু অভিনেত্রীরা তার ধারেকাছেও নেই। সম্প্রতি ভারতীয় অভিনেত্রীদের পারিশ্রমিকের সব রেকর্ড ভেঙে দিলেন কঙ্গনা রানাউত। জয়ললিতার বায়োপিক ‘থলাইভি’র জন্য তিনি নাকি ২৪ কোটি টাকা পাচ্ছেন! এর আগে রেকর্ড ভেঙেছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন, ‘পদ্মাবত’-এর জন্য। কিন্তু সে-ও ১৩ কোটি টাকা। কঙ্গনা যা পাচ্ছেন, তার প্রায় অর্ধেক! তা হলে কঙ্গনাই কি একা হাতে ছবিটা পাল্টে দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন?

পারিশ্রমিকে বৈষম্য নিয়ে নানা সময়ে মুখ খুলেছেন বলিউডের অভিনেত্রীরা। বরাবর অভিনেতারাই বেশি টাকা পেয়ে এসেছেন। কঙ্গনাই এক বার এই প্রসঙ্গে বলেছিলেন, ‘‘এক জন অভিনেতা যত সময় ধরে কাজ করেন সেটে, অভিনেত্রী হিসেবে আমিও যদি ততটা সময় দিই, তা হলে আমার পারি‌শ্রমিক কম হবে কেন!’’ এই একই প্রশ্নের উত্তরে তাপসী পান্নু একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘‘এক জন বড় মাপের তারকা হিরো হিসেবে যত সংখ্যক দর্শক টানতে পারেন, মহিলারা কি ততটাই পারছেন? শুধু শুধু প্রযোজকরা নিজেদের ক্ষতি করবেনই বা কেন!’’

কঙ্গনার কাছে এর জবাবও রয়েছে। তিনি পাল্টা প্রশ্ন করেছেন, ‘‘এখন ইন্ডাস্ট্রিতে বহু মেয়েই এই পাল্টা যুক্তি তুলছেন। কিন্তু আমরা যদি নিজেদের মধ্যে এমন ইনফিরিয়রিটি কমপ্লেক্স তৈরি করতে থাকি, ভাল সময় আসবে কী করে?’’ কঙ্গনার এই ২৪ কোটি যে একটা পরিবর্তনের দিশা দেখাতে পারে, সেটা নিয়ে সন্দেহ নেই। যে পরিবর্তনের সূত্রপাত অবশ্য দীপিকার থেকেই। ‘পদ্মাবত’-এ তিনি ১৩ কোটি পেলেও রণবীর সিংহ ও শাহিদ কপূর পেয়েছিলেন ১০ কোটি করে। নামী অভিনেতারা থাকা সত্ত্বেও অভিনেত্রী বেশি পারিশ্রমিক নিয়ে যাচ্ছেন, এই দৃষ্টান্ত আগে সম্ভবত দেখেনি বলিউড।

তবে বৈষম্য এখনও কম নয়। ‘বীরে দি ওয়েডিং’-এর পরে করিনা কপূর নিজের পারিশ্রমিক বাড়িয়ে সাড়ে ১১ কোটি করেছিলেন। এর পরে তাঁর হাতে রয়েছে অক্ষয়কুমারের সঙ্গে ‘গুড নিউজ়’ এবং রণবীর সিংহের সঙ্গে ‘তখত’। অক্ষয়ের কথা তো ছেড়েই দিন, রণবীর সিংহের পারিশ্রমিকও এখন করিনার চেয়ে বেশি।

অবশ্য পুরোটাই হয় ছবির বাজেট, শুটিংয়ের শিডিউল, অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ফেস ভ্যালুর উপরে নির্ভর করে। ‘জ়িরো’র জন্য অনুষ্কা শর্মা যেমন আট কোটি পেয়েছিলেন। তবে এই অঙ্কে তারতম্য থাকেই। শোনা যায়, ‘ভারত’-এর জন্য প্রিয়ঙ্কাকে অফার করা হয়েছিল সাড়ে ৬ কোটি টাকা। যেখানে সলমন ষাট কোটির নীচে কথাই বলেন না! অন্য দিকে ‘দ্য স্কাই ইজ় পিঙ্ক’ তাঁর নিজের প্রোডাকশন হলেও প্রিয়ঙ্কার পারিশ্রমিক ১৩ কোটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *